[english_date], [bangla_date]

উখিয়ায় ইয়াবা খোকার স্বর্ণ কমল

Thursday, 01/09/2016 @ 2:11 pm

ইয়াবানিউজ ডেস্ক : কক্সবাজারের উখিয়ার বহুল আলোচিত দেশের যুব সমাজ ধ্বংসকারী মরণ নেশা ইয়াবা পাচারকারীদের অন্যতম গডফাদার উপজেলার রাজাপালং ইউনিয়নের লম্বাঘোনা নামক এলাকার মৃত ফকির আহম্মদের ছেলে খোকা প্রকাশ ইয়াবা খোকা। সে এক সময়ের মাইক্রোবাসের হেলপার থেকে বনে যায় ড্রাইভার, ড্রাইভার হিসেবে গাড়ি চলাকালীন সময়ে সে কক্সবাজারের টেকনাফের ইয়াবা সিন্ডিকেটের গডফাদার স¤প্রতি ক্রসফায়ারে নিহত টেকনাফ উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি জাহেদ হোসেন জাকু ও ইয়াবা সম্রাট নুর মোহাম্মদের সাথে গড়ে তুলে গভীর সখ্যতা। অর্জন করে আস্তা ও বিশ্বাস, এর পর থেকে খোকাকে দেওয়া হয় ঢাকা ও চট্টগ্রামে ইয়াবা পাচারের দায়িত্বভার। সূত্র মতে, উক্ত দুই ইয়াবা সম্রাট নিহত হওয়ার পরে নুর মোহাম্মদের স্ত্রী খুরশিদা বেগম ও জাকুর স্ত্রী সাথে সমন্বয় করে ইয়াবার বকেয়া টাকা উত্তোলনের পাশাপাশি তাদের ব্যবসার হাল ধরেন খোকা, যার এক সময়ে নুন আনতে পানত লাগত সে আজ নামে বেনামে গড়ে তোলে অঢল সম্পদ, ক্রয় করে একাধিক গাড়ী, বাড়ী ও নারী। বনে যায় রাতারাতি কোটিপতি, গড়ে তোলে ১২ টি সিসি ক্যামরায় ব্যষ্টিত একটি স্বর্ণ কমল, যা খুলনার সেই বহুল আলোচিত এরশাদ সিকদারের স্বর্ণ কমলকেও হার মানিয়েছে। এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, স্থানীয় প্রশাসনকে ম্যানেজ করে ইয়াবা ব্যবসা অব্যাহত রাখলেও দাপটের সহিত এ ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে। তার ডজন খানেক সহযোগী মাসিক চুক্তিতে ইয়াবার চালান দেশের বিভিন্ন স্থানে পৌছে দেন। তার নিরাপদ যোগাযোগের মাধ্যম হচ্ছে লম্বাঘোনা হয়ে মরিচ্যা সড়ক দিয়ে। এ ইয়াবা নেশায় উখিয়াতে শত শত স্কুল, কলেজ ও মাদ্রাসা পড়–য়া ছাত্র আসক্ত হয়ে পড়েছে। যার কারনে বিপদ গামী হচ্ছে ওই সব ছাত্ররা। এলাকাবাসী তাকে গ্রেপ্তার করে সম্পদের উৎস ও স্বর্ণ কমল বাড়ীটি জব্দ করার জন্য প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন। এ ব্যাপারে অভিযুক্ত ইয়াবা গডফাদার খোকার ২টি মুঠোফোন যোগাযোগ করেও বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি। এছাড়াও গত ক’দিন ধরে বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশের পর থেকে ইয়াবা গডফাদার খোকা গা ঢাকা দিয়েছে বলে দায়িত্বশীল সূত্রে জানা গেছে। উখিয়া থানার ওসি মোঃ আবুল খায়ের বলেন, ঘটনার সত্যতা তদন্ত করে তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।