[english_date], [bangla_date]

সোনামণির ত্বকের যত্ন গরমে

Saturday, 27/05/2017 @ 6:33 am

নিউজ ডেস্ক : গরমের সময় বড়দের যে পরিমানে কষ্ট হয় তার চেয়ে বেশি কষ্ট হয় শিশুদের। অনেকসময় তারা তাদের অসুবিধার কথা বলতেও পারে না। ফলে গরম থেকে নানা সমস্যা তৈরি হয়। যেহেতু শিশুদের অবিভাবক আমরাই তাই গরম থেকে তাদের রক্ষা করার দায়িত্বও আমাদের। এসময় বাড়তি কিছু বিষয় খেয়াল রাখাটা জরুরী। তাই দেখে নিন এরকম কয়েকটি বিষয়।
করণীয় :
বারবার পানি পান করানো উচিৎ। তাই শিশু পরিমান মতো পানি পান করছে কিনা সেদিকে খেয়ল রাখুন। সম্ভব হলে ডাবের পানি, ফলের রস খাওয়ান।
গরমে সহজপাচ্য খাবার খেতে দিন।
শরীরের তাপমাত্রা বাড়লে গা মুছে দিন।
শিশুকে এ সময় অবশ্যই সুতির নরম ও পাতলা পোশাক পরানোর চেষ্টা করুন।
খুব রোদে শিশুদের বাড়ির বাহিরে বের করা থেকে বিরত থাকুন। আর যদি বের হতেই হয়, অবশ্যই শিশুদের ছাতার নিচে রাখুন। আর ভাড়ি করে বেবি পাউডার ব্যবহার করুন।
শিশুকে সরাসরি ফ্যান কিংবা এসির কাছে শোয়াবেন না। প্রয়োজনে ঘরের জানালা খুলে দিন।
খেয়াল রাখুন কোনো ভাবেই যেন ঘাম শরীরে না শুকায়, এতে ঠাণ্ডা লেগে যেতে পারে। এজন্য বারবার ঘাম মুছে দিন।
শিশুর ত্বকে যেন ঘামাচি না ওঠে এজন্য গোসলের পর এবং ঘুমাতে যাওয়ার আগে ঘামাচি পাউডার লাগিয়ে দিন।
আপনার শিশুর পোশাকের দিকে লক্ষ রাখুন। ঘেমে ভিজে গেলে বা নোংরা হয়ে গেলে তা পরিবর্তন করে দিন।
গরমের সময় মশা, মাছি, পিঁপড়ে অথবা বিভিন্ন পোকামাকড়ের প্রকোপ দেখা যায়, যা আপনার শিশুর অসুস্থতার কারণ হতে পারে। আপনার ঘরকে এগুলো থেকে মুক্ত রাখতে অ্যারোসল বা অন্য কীটনাশক ব্যবহার করতে পারেন। তবে অবশ্যই খেয়াল রাখবেন আপনার শিশু যেন কোনোভাবেই এগুলোর নাগাল না পায়। এছাড়া ঘরকে পোকামাকড়মুক্ত রাখতে ঘর পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখুন। ফুলের টবে বা অন্য কোথাও এমনকি বালতিতেও পানি জমতে দেবেন না।