[english_date], [bangla_date]

গৃহবধূকে হত্যার অভিযোগ সিরাজগঞ্জে

Saturday, 15/07/2017 @ 7:04 am

নিউজ ডেস্ক : যৌতুকের দাবিতে সিরাজগঞ্জের তাড়াশে তানিয়া খাতুন (২২) নামে এক গৃহবধূকে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। শনিবার সকালে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সিরাজগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে। এ ঘটনায় নিহতের শ্বশুর শাহরিয়ার আলম (৬০) ও শাশুড়ি বুলবুলী খাতুন (৫০)কে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশ হেফাজতে নেওয়া হয়েছে।
নিহত তানিয়া উপজেলার মাগুড়া বিনোদ ইউনিয়নের হামকুড়িয়া গ্রামের মাওলানা আবু সাইদের মেয়ে ও তাড়াশ গ্রামের সবুজ আহমেদের স্ত্রী। তবে স্বামী সবুজ পলাতক রয়েছেন। নিহত গৃহবধূ তানিয়ার দেড় বছরের এক শিশু সন্তান রয়েছে।
নিহতের ভাই মিন্টু আহমেদ বলেন, প্রায় তিন বছর আগে তাড়াশ সদরের শাহরিয়ার আলমের ছেলের সঙ্গে পারিবারিকভাবে বিয়ে হয় তানিয়ার। বিয়ের পরে ভগ্নিপতি সবুজ ও তার বাবা-মা ৫০ হাজার টাকা যৌতুকের জন্য তাকে প্রায় নির্যাতন করতো। কোনো উপায়ন্তর না পেয়ে আবাদি জমি বন্ধক রেখে বোনের সুখের কথা চিন্তা করে তাদের ৫০ হাজার টাকা দেওয়া হয়।
তিনি বলেন, গত রোজার ঈদের আগে আবারও সবুজ আহমেদ সরকারি চাকরি করবে বলে আমার বোনকে টাকার জন্য মারধর করে। আবারও টাকা দেই। তাও তিনি ক্ষ্যান্ত হননি। আমার বোনকে হত্যা করে ঘরের আড়ার সঙ্গে ঝুলিয়ে রেখে আত্নহত্যা করেছে বলে চালিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করছে। পরে থানায় খবর দিলে পুলিশ শনিবার সকালে ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে।
তাড়াশ ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মনজুর রহমান জানান, খবর পেয়ে সকালে ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সিরাজগঞ্জ সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্ত রির্পোট হাতে পেলে সঠিক তথ্য বোঝা যাবে।