[english_date], [bangla_date]

সাভারে র‌্যাবের অভিযানে আটক ৪ জঙ্গি সারোয়ার-তামিম গ্রুপের

Sunday, 16/07/2017 @ 11:44 am

নিউজ ডেস্ক : সাভারের আশুলিয়ায় একটি বাড়িতে র‌্যাবের অভিযানে আত্মসমর্পণ করেছেন চার সন্দেহভাজন জঙ্গি। তারা সারোয়ার-তামিম গ্রুপের জঙ্গি বলে দাবি করেছে র‌্যাব। রোববার বেলা ২টার দিকে নয়ারহাটে ঘটনাস্থলের পাশে এক ব্রিফিংয়ে র‌্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার প্রধান লে. কর্নেল মুফতি মাহমুদ খান এ দাবি করেন। তিনি জানান, এই আস্তানা থেকে গ্রেফতার হওয়া চারজন হলেন- মোজাম্মেল, ইরফানুল, রাশেদুল ও আলমগীর। মোজাম্মেল তাদের দলনেতা।
এই র‌্যাব কর্মকর্তা বলেন, ‘বাড়ির মালিক ইব্রাহিমই জানিয়েছিল, তার বাড়ির ভাড়াটিয়াদের চলাফেরা সন্দেহজনক। সেই তথ্যের ভিত্তিতে অভিযান চালানো হয়। শনিবার রাত ১টায় বাড়িটি ঘেরাও করা হয়। রাত ৩টার দিকে জঙ্গিরা র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে গুলিবর্ষণ ও বোমার বিস্ফোরণ ঘটায়।’
তিনি বলেন, ‘র‌্যাব বিভিন্নভাবে তাদের আত্মসমর্পণ করানোর চেষ্টা করে। মাইকিং করে দুপুর ১২টা পর্যন্ত সময় বেঁধে দেয়। ওয়ার্নিং শট দেওয়া হয়। এসময় একজন বের হয়ে আসে। সে বের হয়ে জানায় ভেতরে আরো তিনজন আছে। তার মাধ্যমে আলোচনা করে বাকিদের বের করা হয়।’
অভিযান এখনো শেষ হয়নি জানিয়ে মুফতি মাহমুদ বলেন, ‘র‌্যাবের ডগ স্কোয়াড ও বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিট বাড়ির ভেতরে কাজ করছে। অবিস্ফোরিত অবস্থায় বেশকিছু এক্সপ্লোসিভ ডিভাইস পাওয়া গেছে।’
তিনি বলেন, ‘আমরা মিনিমাম ফোর্স ক্রিয়েট করে জঙ্গিদের জীবিত অবস্থায় সারেন্ডার করতে বাধ্য করেছি যাতে এদের কাছ থেকে আরো তথ্য পাওয়া যায়। এজন্যই দীর্ঘ সময় অপেক্ষা করা হচ্ছিলো। ’
এর আগে শনিবার রাত ১টার দিকে ওই বাড়িটি জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে ঘিরে ফেলে র‌্যাব সদস্যরা। এ সময় বাড়ির ভেতর থেকে কয়েক রাউন্ড গুলি ছোঁড়া হয় ও বোমার বিস্ফোরণ ঘটানো হয়।
রোববার দুপুর ১২টার দিকে ওই বাড়ি থেকে একজন বেরিয়ে এসে আত্মসমর্পণ করেন। মিনিট দশেক পর আরো একজন বেরিয়ে আসেন। এরপর দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে তৃতীয়জন আত্মসমর্পণ করেন। দুপুর ১টার আগে আত্মসমর্পণ করেন আরেকজন।
এছাড়া বাড়ির মালিক ইব্রাহিমকে আটক করার কথা জানিয়েছিল র‌্যাব। পোশাক শ্রমিক পরিচয় দিয়ে বাড়িটি ভাড়া নেয়া হয় বলে তিনি র‌্যাবকে জানান।