আইন ও আদালতরাজশাহীসারাদেশ

আড়ানী পৌর মেয়রের বাড়িতে অস্ত্র, মাদক,নগদ টাকা উদ্ধার ,স্ত্রীসহ আটক ৩

মোঃজিল্লুর রহমান খান রিপন বাঘা(রাজশাহী)প্রতিনিধি: রাজশাহীর বাঘা উপজেলার আড়ানী পৌরসভার মেয়র মুক্তার আলীর বাড়ি থেকে মাদক,অস্ত্রসহ ৯৫ লক্ষ নগদ টাকা উদ্ধার করেছে পুলিশ। এসময় মেয়রের স্ত্রী জেসমিন বেগমসহ তার দুই ভাতিজাকে আটক করা হয়েছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রাজশাহী জেলা পুলিশ সুপার এবিএম মাসুদ হোসেন। অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আশরাফুল ইসলামের নেতৃত্বে গতকাল মঙ্গলবার গভীর রাতে পুলিশ অভিযান চালায় বলে জানা গেছে।

মেয়রের বাড়ী হতে নগদ ৯৫ লক্ষ টাকা, ৪টি পিস্তল,ইয়াবা মাদক উদ্ধার করা হয়।এসময় আড়ানী পৌর মেয়র মুক্তার আলীকে বাড়ীতে পাওয়া যায়নি। তাকে আটকের চেষ্টা করছে পুলিশ।

উল্লেখ্য, গতকাল রাত নয়টার দিকে মেয়র মুক্তার আলী আড়ানী বাজারের পল্লী চিকিৎসক জানারুল ইসলামের দোকানে গিয়ে তাকে প্রথমে মারপিট করেন। পরে মেয়রের সাথে থাকা লোকজন বাজারের পল্লী চিকিৎসক মনোয়ারুল ইসলাম, তার স্ত্রী ও ৭ বছরের শিশু সন্তান কে মারপিট করে। এ ঘটনায় আহত মনোয়ারুল ইসলামকে রাতেই বাঘা উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভর্তি করা হয়।ঘটনার রাতেই পুলিশকে অভিযোগ করা হলে এসপি মাসুদ হোসেনের নেতৃত্বে পুলিশ মেয়র মুক্তার আলীর বাড়িতে অভিযান চালায়। এ সময় নগদ ৯৫ লক্ষ টাকা, মাদকএবং চারটি অস্ত্রসহ মেয়রের স্ত্রী এবং ২ ভাতিজাকে আটক করে পুলিশ।

এ বিষয়ে মেয়র মুক্তার আলীর সাথে কথা বলার চেষ্টা করলে তার ব্যবহৃত মোবাইলটি বন্ধ পাওয়া যায়। তবে তার ছেলের শ্বশুর আলহাজ শামিম হোসেন, এবং নিকটতম আত্মীয় সঙ্গে যোগাযোগ করলে তারা বলেন বাড়ীতে টাকা পাওয়ার ঘটনা সঠিক। এটি ব্যাবসা সংক্রান্ত টাকা। ঘটনার দিন বিকেলে পাওয়া নগদ অর্থ।
তবে অস্ত্র, গুলি এবং মাদক পাওয়ার পেছনে রাজনৈতিক ষড়যন্ত্র রয়েছে। তারা বলেন, মুক্তার আলী গত ১৫ জানুয়ারী ২০২১ পৌর নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন না পেয়ে সরকার দলীয় প্রার্থীর বিরুদ্ধে বিদ্রোহী প্রার্থী হয়ে ভোটে জয়যুক্ত হন। এর পর থেকে একটি মহল তাকে নানা ভাবে ফাঁসানোর চেষ্টা চালিয়ে আসছিল। এমনটি হতে পারে আশাবাদী তারা

এবিষয়ে বাঘা থানা তদন্ত (ওসি) মোয়াজ্জেম হোসেন বলেন,১টি পিস্তল ও ৩টি বাইবগানসহ নগদ ৯৪লক্ষ ৯৮ হাজার টাকা ও ইয়াবা ও মদ উদ্ধার হয়।আজ দুপুরে অস্ত্র ও মাদক মামলা দিয়ে তাদের জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

এই জাতীয় আরো খবর

Back to top button