রবিবার, ৩১ মে, ২০২০

কন্যাশিশুকে পানিতে চুবিয়ে হত্যা করল মা

রংপুরের মিঠাপুকুরে ৫২ দিন বয়সী এক কন্যাশিশুকে পানিতে চুবিয়ে হত্যার অভিযোগে মাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

মিঠাপুকুর উপজেলার গোপালপুর ইউনিয়নের গোপিনাথপুর গ্রামে শুক্রবার সকালে ওই ঘটনার পর খালেদা বেগম নামে ওই নারীর বিরুদ্ধে মামলা করেছেন তার স্বামী সুলতান মাহমুদ।

শনিবার   মিঠাপুকুর থানার ওসি জাফর আলী বিশ্বাস বলেন, “প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ওই নারী তার মেয়েকে হত্যার কথা স্বীকার করেছেন। জবানবন্দি দেওয়ার জন্য আজ তাকে আদালতে পাঠানো হচ্ছে।”

স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, গোপিনাথপুর গ্রামের সুলতান মিয়ার আরও দুটি মেয়ে আছে। তাদের একজনের বয়স ১৩ বছর, আরেজনের ৬। আবারও তাদের মেয়ে হওয়ায় সংসারে অশান্তি চলছিল।

একজন প্রতিবেশী জানান, শুক্রবার সকালে হঠাৎ তারা খালেদাকে কান্নাকাটি করতে দেখেন। বাড়ির লোকজনকে তিনি বলেন- তার ছোট মেয়েকে পাওয়া যাচ্ছে না। বাড়ির আশপাশে অনেক খোঁজাখুঁজির পর একটি পুকুরে ভাসমান অবস্থায় শিশুটির লাশ পান প্রতিবেশীরা।

পরিবারের লোকজন শিশুটির লাশ তুলে এনে বাড়িতে দাফনের চেষ্টা করে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ নিয়ে মর্গে পাঠায়।

আরও পড়ুনঃ গোসলের ভিডিও প্রকাশের ভয় দেখিয়ে প্রবাসীর স্ত্রীকে লাগাতার ধর্ষণ

পরিবারে অশান্তির কারণে ক্ষোভ থেকেই থালেদা তার নিজের মেয়েকে পানিতে চুবিয়ে হত্যা করেছেন বলে স্থানীয়দের ধারণা। খালেদার স্বামী সুলতান মাহমুদের করা মামলাতেও একই অভিযোগ করা হয়েছে।

গোপালপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আমিরুল ইসলাম দিলীপ বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে  বলেন, “কাল সকালে ঘুম থেকে উঠে ঘটনাটি শুনি। বিষয়টার সুষ্ঠু তদন্ত হওয়া দরকার।”

0Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *