বুধবার, ২৭ মে, ২০২০

ভারতের এনএসজি কমান্ডোরা পারে না জঙ্গি আক্রমণ ঠেকাতেঃ মার্কিন রিপোর্ট

ন্যাশনাল সিকিউরিটি গার্ড(এনএসজি)কমান্ডোদের কঠোর প্রশিক্ষণ দেওয়া হয় ঠিকই কিন্তু জঙ্গি হামলা হলে দ্রুত পাল্টা আক্রমণ চালানোর ক্ষমতা তার নেই।

সন্ত্রাসবাদীদের বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্য ভারতে যে ন্যাশনাল সিকিউরিটি গার্ড তৈরি হয়েছে, তাদের সম্পর্কে এমনই মন্তব্য করল মার্কিন বিদেশ দফতর। তারা জঙ্গি আক্রমণ ঠেকাতে পারে না। ভারতে এনএসজি কমান্ডোরা ‘ব্ল্যাক ক্যাট’ নামে পরিচিত।

গত শুক্রবার বিদেশ দফতরের ‘কান্ট্রি রিপোর্ট অন টেররিজম ২০১৮’ নামে একটি পুস্তিকা প্রকাশিত হয়। তাতে কোন দেশ জঙ্গি দমনে কেমন ব্যবস্থা নিয়েছে তা উল্লেখ করা হয়েছে। সেখানেই এনএসজি সম্পর্কে ওই মন্তব্য করা হয়।

রিপোর্টে বলা হয়েছে, এনএসজি কমান্ডোদের যে প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়, তা খুবই শ্রমসাধ্য। কিন্তু তাদের ক্ষমতা সীমিত। তার কারণ হল সেখানে কমান্ডোর সংখ্যা কম। ভারত দেশটিও বিশাল বড়।
আরও পড়ুনঃ
মুম্বাইয়ে ২৬/১১-র জঙ্গি হানা এবং ২০১৬ সালে পাঠানকোটে বিমান ঘাঁটিতে জঙ্গি হানা ঠেকাতে এনএসজি কমান্ডোরা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নিয়েছিল। ভারতের গোয়েন্দা সংস্থাগুলোর সমালোচনা করে মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলছে, তারা খবর সংগ্রহে খুব একটা দক্ষ নয়।

একটি নিরাপত্তারক্ষী সংস্থা গোপন খবর পেলে অপর সংস্থাকে সহজে দিতে চায় না। যদিও ভারতে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের এক কর্তা বলছেন, রাজ্য ও কেন্দ্রীয় সরকারের সংস্থাগুলো

এখন পরস্পরের সঙ্গে সহযোগিতা করে। তার কথায়, গত পাঁচ-ছয় বছর ধরে বিভিন্ন সংস্থার মধ্যে সহযোগিতা বৃদ্ধি পেয়েছে। তাদের মধ্যে যোগাযোগ রাখার জন্য মাল্টি এজেন্সি সেন্টার গড়ে তোলা হয়েছে। সেই সেন্টার নিয়মিত বৈঠকে বসে।

মার্কিন রিপোর্টে পাকিস্তানের মদদপুষ্ট দুই জঙ্গি সংগঠন লস্কর ই তৈবা ও জয়েশ ই মহম্মদের কথা উল্লেখ করে বলা হয়েছে, ভারত ও আফগানিস্তানে নির্দিষ্ট লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত করার মতো ক্ষমতা ও আগ্রহ, দুই-ই তাদের আছে। সূত্র : দ্য ওয়াল।

0Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *