চট্টগ্রামসারাদেশ

মিরসরাইয়ের বিধবা আফিয়া বেগমের পাশে দাঁড়ালো ইনার হুইল ক্লাব অব সী কুইন

রেদোয়ান হোসেন জনি, (চট্টগ্রাম) মিরসরাই প্রতিনিধি:

মিরসরাইয়ে অসহায় আফিয়া বেগমের পাশে দাঁড়ালেন সেবামূলক ও মানবিক সংগঠন “ইনার হুইল ক্লাব অব সী কুইন। রবিবার (১২ সেপ্টেম্বর) বিকেলে উপজেলার মিঠানালা ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের পশ্চিম মলিয়াইশ বন্দে আলী হাজী বাড়ির বিধবা আফিয়া বেগমের বাড়ি পরিদর্শন করেন “ইনার হুইল ক্লাব অব সী কুইন-চট্টগ্রাম এর সদস্যরা।

অনুদানের টাকায় নির্মিত ঘর, স্থাপিত নলকূপ ও সার্বিক অবস্থা পরিদর্শন শেষে আফিয়া বেগমের পরিবারের সাথে কুশল বিনিময়ের সময় চিকিৎসার জন্য তাৎক্ষণিকভাবে তিনহাজার টাকা এবং দুইটা ফ্যান কেনার জন্য সংগঠনের সদস্য ফেরদৌসী রহমান তিন হাজার টাকা সহ মোট ৬হাজার টাকা প্রদান করেন।

উল্লেখ্য, মিরসরাইয়ের প্রত্যন্ত অঞ্চল মিঠানালা ইউনিয়নের পশ্চিম মলিয়াইশ বন্দে আলী হাজী বাড়িতে আফিয়ার বসবাস। স্বামী মুজিবুল হক কিছুদিন আগে না ফেরার দেশে চলে যান। অভাবের সংসার। একটি ঝুপড়ি ঘরে কোনমতে দিন কাটাচ্ছিলেন। যেটি যেকোন সময় উড়ে যেতে পারে ঝড়ো হাওয়ায়। বৃষ্টির পানিতে থইথই অবস্থা। অসহায় ও অগোছালো পরিবার। নুন আনতে পানতা ফুরায় অবস্থা। শীতল পাটি, হাত পাখার মত ছোট খাট হস্তশিল্প বিক্রি করে প্রাপ্তবয়স্ক তিন মেয়ে নিয়ে কোনমতে খেয়ে না খেয়ে দিন কাটে।

এই অসহায় পরিবারটির জন্য মাথা গোঁজার মতো ঘর করে দেয়ার উদ্যোগ গ্রহণ করে রিদওয়ান শাহরিয়ার নামে বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া একজন তরুন। গত ৫ জুন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে অনুদান চেয়ে পোষ্ট করলে অনেকেই তার পোস্টের প্রেক্ষিতে সাড়া দেয়। তারই অংশ হিসেবে আফিয়া বেগমের কষ্ট লাঘবে সাহায্যার্থে এগিয়ে আসে ইনার হুইল ক্লাব অব সি কুইন-চট্টগ্রাম। ১৭ জুলাই নগরীর চিটাগাং ক্লাবে অনুষ্ঠিত সি কুইনের মাসিক সাধারণ সভায় আফিয়া বেগমের ঘরের জন্য ক্লাবের পক্ষ থেকে ৩৮ হাজার টাকা প্রদান করা হয়।

সংগঠনের সভাপতি আলিনা মেহনাজ বলেন, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম মিরসরাই টোয়েন্টিফোর টিভির ফেসবুক পেইজে বিধবা আফিয়ার অসহায়ত্বের বিষয়টি তুলে ধরায় আমাদের সংগঠনের সদস্যদের নজরে আসলে আমরা এগিয়ে আসি। তারই অংশ হিসেবে আফিয়ার গৃহ নির্মাণ ও নলকূপ স্থাপনের জন্য সহযোগিতা প্রদান করি। তবে সরেজমিন পরিদর্শন করে খুব ভালো লাগলো যে আমাদের প্রদত্ত সাহায্য যথাযথ যায়গায় পৌঁছেছে।

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র ও বিধবা আফিয়ার আত্মীয় রিদওয়ান শাহরিয়ার বলেন, আফিয়া বেগমের সাথে আমার আত্মীয়তার সম্পর্ক হলেও ব্যস্ততা ও যোগাযোগ ব্যবস্থার কারণে তাদের এই মানবেতর জীবনযাপনের বিষয়টি সম্পর্কে অবগত ছিলাম না। গত রমজানে তাদের বাড়িতে আসলে বিষয়টি আমার নজরে আসে। পরবর্তীতে বিষয়টি তুলে ধরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে পোস্ট করার পর বিষয়টি মিডিয়ার মাধ্যমে ইনার হুইল ক্লাব অব সী কুইন সংগঠনের নজরে আসলে তারা বিধবা আফিয়ার সাহায্যার্থে এগিয়ে আসে। আমার থেকে সম্পূর্ণ তথ্য জেনে কয়েকটি ধাপে তারা অনুদান দিয়ে সাহায্য করেন! সর্বমোট ৫০ হাজার টাকা অনুদান প্রদানের মাধ্যমে “ইনার হুইল ক্লাব অব সী কুইন” ক্লাব এবং এর সাথে জড়িত সংশ্লিষ্টরা এই মহৎ কাজে অংশ নেন! এভাবেই সমাজের বিত্তবানদেরকে মানবিক কাজে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান তিনি।

সরেজমিন পরিদর্শনের সময় ক্লাবের প্রেসিডেন্ট আলিনা মেহনাজ, ফার্স্ট প্রেসিডেন্ট সৈয়দা তহমিনা গিয়াস, ইমেডিয়েট ফার্স্ট প্রেসিডেন্ট নেজাত সুলতানা মিলি, চার্টার প্রেসিডেন্ট সৈয়দা জিনাত আরা নিপুন, সেক্রেটারী শাহেদা সালাম, ট্রেজারার নাজিয়া তাবাসসুম, আইএসও ফারহানা হক, মেম্বার ফেরদৌসী রহমান এবং নাসরিন সুলতানা এ্যানি সহ সংগঠনের মোট ১৫ জন সদস্য উপস্থিত ছিলেন।

এই জাতীয় আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button