বুধবার, ২৭ মে, ২০২০

লক্ষ্য এখন সিরিজ জয়ঃ মুশফিক

ভারতের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টিতে ৮ ম্যাচে বাংলাদেশের জয় ছিলো না একটিও। অথচ এখন উজ্জ্বল সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে দেশটির বিপক্ষে সিরিজ জিতে নেয়ার।

অসাধারণ এ সাফল্য অর্জনের জন্য এখন দুই ম্যাচে প্রয়োজন একটি মাত্র জয়। টাইগারদের নির্ভরতার প্রতীক মুশফিকুর রহীম অবশ্য দুই ম্যাচ হিসেবে আনতে চান না।

তার মতে দ্বিতীয় ম্যাচটিতেই হয়ে যেতে পারে সিরিজ জয়। রোববার প্রথমবারের মতো ভারতকে হারানোর ম্যাচে নায়ক ছিলেন মুশফিক।

দায়িত্বশীল ইনিংসে ৪৩ বলে ৬০ রান করার মাধ্যমে জিতেছেন ম্যাচ সেরার পুরষ্কার। ম্যাচ পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে এসে জানিয়েছেন, দলের লক্ষ্য এখন সিরিজ জয়। যেটি হয়ে যেতে পারে সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচেই।

মুশফিক বলেন, ‘আমরা এখানে প্রত্যেক ম্যাচে প্রতিদ্বন্দ্বিতা গড়ার চিন্তা নিয়ে এসেছিলাম। আমরা দিনকে দিন উন্নতির চেষ্টা করেছি এবং সেই অনুযায়ী কাজ করেছি। প্রথম ম্যাচ জয়ের পর আমাদের লক্ষ্য থাকবে আরেকটি জয় তুলে নেওয়ার। অসম্ভব বলে কিছুই নেই। আমাদের সিরিজ জয়ের চিন্তা থাকবে অবশ্যই। হয়তো দ্বিতীয় ম্যাচেই হয়ে যেতে পারে।’

নিজের ম্যাচসেরার পুরষ্কার জিতলেও কৃতিত্বের বড় একটা অংশ বোলারদেরই দেন মুশফিক। তার মতে ভারতীয় ইনিংসে বোলারদের অসাধারণ পারফরম্যান্সের ম্যাচের গতিবিধি নিজেদের পক্ষে রাখা গিয়েছিল।

‘এটা আমাদের জন্য খুব বড় একটি মুহূর্ত। আমরা কখনো ভারতের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টিতে জিতিনি। এবার পেরেছি। আমরা বেশ কিছু নিয়মিত খেলোয়াড়কে ছাড়া খেলেছি।

আরও পড়ুনঃ নতুন মাইলফলক গড়তে যাচ্ছে বাংলাদেশ-ভারতের ম্যাচটি

কিন্তু তরুণরা তাদের দায়িত্ব ঠিকমতো পালন করেছে। বিশেষ করে বোলাররা ভারতের এমন উইকেটে যেভাবে বোলিং করেছে, তা সত্যিই প্রশংসনীয়। ওরাই ম্যাচটা সেটআপ করে দিয়েছে’- বলছিলেন মুশফিক।

তিনি আরও বলেন, ‘লক্ষ্যটা তাড়া করার মতোই ছিল। উইকেটে ব্যাটিং করা সহজ ছিল না। নতুন বলে এবং তাদের ভালোমানের স্পিনারের বিপক্ষে রান তোলা কঠিন ছিল।

তবুও বলব দলের প্রত্যেকে নিজের সামর্থ্য দেখিয়েছে। আমাদের হারানোর কিছু ছিল না। এই পুরো সফরে আমাদের হারানোর কিছু নেই। কিন্তু আজকের জয় আমাদেরকে ভিন্ন চিন্তা করাবে। হয়তো আমরা নতুন মোমেন্টাম পাব।’

এদিকে আজ দুপুরেই দিল্লি ছেড়ে দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টির শহর রাজকোট চলে যাবে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। টাইগারদের মিডিয়া ম্যানেজার রাবিদ ইমাম নিশ্চিত করেছেন তথ্য।

আজ (রোববার) ভারতীয় সময় বেলা সাড়ে ১১টায় (বাংলাদেশ সময় দুপুর ১২টায়) দিল্লি থেকে রাজকোটের উদ্দেশে রওনা হবেন জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা। সেখানে পৌঁছতে সময় লেগে যাবে প্রায় দেড় ঘণ্টা।

বাংলাদেশ সময় দুপুর ২টায় রাজকোট পৌঁছে আজ আর কোনো ক্রিকেটীয় কার্যক্রমে অংশ নেবে না বাংলাদেশ দল। তবে কেউ কেউ ব্যক্তিগত তাড়নায় অনুশীলন করতেও পারেন। এমনিতে দলগতভাবে আজকে কোনো অনুশীলন সেশন নেই।

আগামী বৃহস্পতিবার (৭ নভেম্বর) রাজকোটের স্বরাষ্ট্র ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন স্টেডিয়ামে সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ ও ভারত।

0Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *