আন্তর্জাতিকসাব লিড

শয্যা সংকট, করোনা রোগীদের জার্মানি পাঠাচ্ছে নেদার‌ল্যান্ডস

ডেস্ক রিপোর্ট:

সংক্রমণ বাড়তে থাকার কারণে দেশের হাসপাতালগুলোতে শয্যা সংকট তীব্র হয়ে ওঠায় কিছু রোগীকে সীমান্তবর্তী প্রতিবেশী দেশ জার্মানিতে পাঠানো শুরু করেছে নেদারল্যান্ডস। খবর রয়টার্সের।

দেশটির বন্দর নগরী রটারডাম থেকে ইতোমধ্যে এক রোগীকে অ্যাম্বুলেন্সে জার্মানির বোশুম শহরের এক হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। রটারডাম থেকে বশুমের দূরত্ব ২৪০ কিলোমিটার (১৫০ মাইল)।

নেদারল্যান্ডসের স্বাস্থ্যসেবা কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, মে মাস অতিক্রান্ত হওয়ার ৫ মাস পর, গত দু’সপ্তাহে সর্বোচ্চ সংখ্যক করোনা রোগী ভর্তি হয়েছেন হাসপাতালগুলোতে। বর্তমানে ভর্তি রোগীর সংখ্যা এত বেশি যে, অধিকাংশ হাসপাতাল আর নতুন রোগী নিতে পারছে না।

করোনা রোগীদের অতিরিক্ত চাপ থাকার কারণে অন্যান্য রোগী, বিশেষ করে ক্যান্সার ও হৃদরোগে আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসা সেবা মারাত্মকভাবে ব্যাহত হচ্ছে বলেও জানিয়েছে স্বাস্থ্যসেবা কর্তৃপক্ষ।

অবশ্য জার্মানিতও সম্প্রতি ব্যাপকভাবে বাড়ছে করোনার দৈনিক সংক্রমণ ও মৃত্যু। দেশটির জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, বর্তমানে করোনার চতুর্থ ঢেউয়ের মুখে রয়েছে জার্মানি।

তবে এই পরিস্থিতিতেও প্রতিবেশী নেদারল্যান্ডসের পাশে দাঁড়িয়েছে দেশটি। জার্মানির হাসপাতালগুলো জানিয়েছে, নেদারল্যান্ডসের রোগীদের চিকিৎসা দিতে তারা আন্তরিকভাবে ইচ্ছুক, তবে এই মুহূর্তে সর্বোচ্চ ২০ বিদেশী রোগীকে শয্যা সরবরাহ করা সম্ভব হবে।

করোনা সংক্রমণের ব্যাপক বিস্তারে লাগাম টানতে সম্প্রতি আংশিক লকডাউন জারি করেছে নেদারল্যান্ডস। এই লকডাউনের আওতায়, টিকার ডোজ সম্পূর্ণ করেননি- এমন ব্যক্তিদের জনসমাগমপূর্ণ স্থানে যাওয়ার ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে।

সরকারের এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে শুক্রবার ব্যাপক বিক্ষোভ শুরু হয়েছে দেশটিতে। গত চার দিনে এই বিক্ষোভ থেকে ১৭০ জনেরও বেশি মানুষকে গ্রেফতার করেছে নেদারল্যান্ডসের পুলিশ।

এই জাতীয় আরো খবর

Back to top button