বিশেষ প্রতিবেদনসারাদেশসিলেট

শায়েস্তাগঞ্জে স্বাস্থ্যবিধি হারিয়ে গেছে ঈদের কেনাকাটায়

মোজাম্মেল হায়দার শায়েস্তাগঞ্জ (হবিগঞ্জ) প্রতিনিধি: হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলায় স্বাস্থ্যবিধি না মানার প্রতিযোগিতায় লিপ্ত হাট বাজার ও বস্ত্র বিক্রির ক্রেতা বিক্রেতারা। বিপণিবিতান হাট-বাজার ও ফুটপাতে মানুষের উপচে পড়া ভিড় লক্ষ্য করা যাচ্ছে। দুগ্ধপোষ্য শিশু থেকে শুরু করে সকল বয়সের মানুষজন মনের আনন্দে ঘুরে বেড়াচ্ছে স্বাস্থ্যবিধির তোয়াক্কা না করে। এ পরিস্থিতিতে প্রশাসনের কঠোর নজরদারি থাকা সত্তে¡ও কেউই মানছে না স্বাস্থ্যবিধি। ঈদকে সামনে রেখে শায়েস্তাগঞ্জে স্বাস্থ্যবিধি উপেক্ষিত ঈদের কেনাকাটায়!

৮ মে (শনিবার) সারাদিন সরজমিনে শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন হাট-বাজার ঘুরে দেখা গেছে, সবখানেই লোকে লোকারণ্য। এদের মধ্যে স্বাস্থ্য সচেতন গুটিকয়েক মানুষ মাস্ক পরলেও বাকিদের যথা পূর্বং তথা পরম। নগণ্য সংখ্যক মানুষের মাস্ক থাকলেও তা থুঁতনি বা দাড়ির নিরাপত্তা নিশ্চিত করেছে আবার দেখা যায় মাস্ক শুধু ঠোঁটে লাগানো নাক উন্মুক্ত। লোকজনের গতিবিধি দেখলে বুঝার উপায় নেই দেশে করোনাভাইরাস নামে কোন রোগবালাই আছে।

উপজেলার শিল্পাঞ্চল খ্যাত অলিপুর, সুতাং বাজার, বাছিরগঞ্জ বাজার, ড্রাইভার বাজার, দাউদনগর বাজার, পুরান বাজার ঘুরে একই চিত্র চোখে পড়ে। একই সাথে গণপরিবহনের অনিয়ন্ত্রিত যাত্রী পরিবহনও পরিলক্ষিত হয়েছে। এ ব্যাপারে টমটম, অটোরিকশা, রিকশা, ভ্যানগাড়ি, মাইক্রো বাসের অপরিকল্পিত চলাচলের ব্যাপারে সংশ্লিষ্টদের প্রশ্ন করা হলে কোন সন্তোষজনক জবাব পাওয়া যায়নি। দোকানে বেচা-কেনায় বিধিনিষেধ ও নিয়ম মানার ব্যাপারে প্রশ্ন করা হলে কাপড় ব্যবসায়ী আব্দুর রহমান খান বলেন, সামনে ঈদ তাই ইচ্ছে থাকলেও নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব হচ্ছে না। হ্যান্ড স্যানিটাইজারের ব্যপারে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, গ্রাহক বিষয়টিকে সহজ ভাবে নেয় না, উল্টো গ্রাহক আরো মাইন্ড করে।

শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলা নাগরিক কমিটির যুগ্ম সম্পাদক অসিত রঞ্জন দাশ জানান, ‘এভাবে মানুষের
উপস্থিতি থাকলে শায়েস্তাগঞ্জবাসী ভয়াবহ পরিস্থিতি বরণ করতে হতে পারে। বিষয়টির গুরুত্ব বিবেচনা করে প্রশাসনকে কঠোর হওয়া ছাড়া আর কোন পথ নেই বলে আমি মনে করি।’

শায়েস্তাগঞ্জ ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির সভাপতি আবুল কাশেম শিবলু বলেন, ‘আমরা যথাসাধ্য চেষ্টা
করছি, যেন স্বাস্থ্যবিধি মেনে ব্যবসা করা যায়। ঈদের কারণে মানুষের উপস্থিতি বেশি হওয়ায় কিছুটা
ব্যতিক্রম হচ্ছে।’

এই জাতীয় আরো খবর

Back to top button